পাতা:যশোহর-খুল্‌নার ইতিহাস প্রথম খণ্ড.djvu/১৮২

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে চলুন অনুসন্ধানে চলুন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।

প্রথম পরিচ্ছেদ—উপবঙ্গে দ্বীপমালা । 9) বিৎ পণ্ডিতগণ তাহা সপ্রমাণ করিয়াছেন। পাণিনির মহাভাষে পতঞ্জলি প্রাচীন আর্য্যাবর্তের সীমা নির্দেশ করিতে গিয়া উহার পূৰ্ব্বভাগে কালকবনের উল্লেখ করিয়াছেন।ঞ্চ এই কালকবনই বোধ হয় সুন্দরবন। } কেহ কেহ অনুমান করিয়াছেন, যে মগধের অন্তর্গত প্রাচীন রাজগৃহের ধ্বংসাবশেষের পূৰ্ব্বদিক্ৰন্থ গিরিদ্বয়মধ্যবৰ্ত্ত যে বন এখনও কালুক জঙ্গল বলিয়া খ্যাত আছে, সম্ভবতঃ ইহা তাহাই। # কিন্তু প্রাচীন আর্য্যাবর্তের যে সকল সীমা নির্দিষ্ট হইয়াছে, তাহাতে মগধের বহুপূৰ্ব্বদিকে তাহার পূর্বসীমা বলিয়া বোধ হয়। মগধের মৃত্তিকার অবস্থা পরীক্ষা করিলে, তাহ আধুনিক কোন সময়ে সমুদ্রগর্ভ হইতে উখিত হইয়াছে, এমন প্রতীয়মান হয় না। দিগ্বিজয়প্রকাশে বঙ্গদেশস্থ সরস্বতী ও কালিন্দী নদীর মধ্যবৰ্ত্তী ভূভাগকে কিলকিলা বলা হইয়াছে। এখনও খুলনা জেলার কালিন্দীতটে কলকলি নামে স্থান আছে। কলিকাতার নামের সহিত ইহার কোন সম্বন্ধ আছে কি না বলা যায় না। জনৈক জৈন সুরির নাম কালক। কাহারও কাহারও মতে ইনিই পযুষিণ পৰ্ব্ব প্রবর্তিত করেন। জৈন কালকের সহিত কালকবনের কি সম্বন্ধ তাহাও একটি নির্ণয় করিবার বিষয়। যাহা হউক পূৰ্ব্বে দেখান হইয়াছে যে গঙ্গার মোহানায় সমুদ্রকুলে চিরদিনই বন ছিল ; এই বনের নাম কালকবন বা অন্ত যাহা কিছু হইতে পারে। গঙ্গার মোহানা সম্বন্ধে যে কথা, শতমুখী গঙ্গার শাখা প্রশাখার সমুদ্রসঙ্গম সম্বন্ধেও সেই কথা। বঙ্গদেশে প্রায় সমস্ত দক্ষিণভাগ এই মোহানায় পরিপূর্ণ, এবং তজ্জন্ত সমস্ত দক্ষিণভাগ নিবিড় জঙ্গলাকীর্ণ। এই মোহানাগুলি যত সরিয়াছে, বনও তত সরিয়াছে। বনের উত্তরভাগে লোকের বসতি ক্রমে দক্ষিণদিকে বিস্তৃত হইয়া পড়িয়াছে। গঙ্গা ও পদ্মার সঙ্গম স্থান হইতে উহাদের সমুদ্রসঙ্গম পৰ্য্যন্ত বিস্তৃত দ্বীপই বকদ্বীপ বা বদ্বীপ বলিয়া খ্যাত ছিল। এই বদ্বীপ সমগ্র বঙ্গের অংশ এবং ইহা বহু প্রাচীন গ্রন্থে “উপবঙ্গ” বলিয়া খ্যাত। ইহা ভাগীরথীর পূৰ্ব্বপার হইতে আরম্ভ করিয়া দক্ষিণে সমুদ্র পর্যন্ত “अठाकांनरुवनां९ प्रक्रिrन श्धिदछपूख्रब१भब्रिशाजन्” भांनिनि २isp• अशणण वित्रएकांव छछूर्ष १७ २ शृठे ७ *** श्रृंडे । - - BBBB BBBBS BBttS S BBB BB BS BBB BBB SSSSSZSS