পাতা:যশোহর-খুল্‌নার ইতিহাস প্রথম খণ্ড.djvu/৩১২

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে চলুন অনুসন্ধানে চলুন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।

रै8३ যশোহর-খুলনার ইতিহাস । বৈষ্ঠ ও দক্ষিণ রাঢ়ীয় কায়স্থ এই তিন শ্রেণীর কুল-কথাই আমাদের প্রধান আলোচ্য । বল্লালসেন ব্রাহ্মণাদি জাতির আদর্শ চরিত্র অক্ষুঃ রাখিবার উপায়স্বরূপ নয়টি কুল লক্ষণ নির্ণয় করেন : আচারো বিনয়ে বিদ্যা প্রতিষ্ঠা তীর্থদর্শনম্। নিষ্ঠাবৃত্তিস্তপোদানং নবধ কুল-লক্ষণম্৷ * আদিশূরের আনীত পঞ্চব্রাহ্মণের অধস্তন সন্তান সন্ততি এই সময়ে ৫৬ ঘর হইয়াছিলেন। উহার ছাপ্পান্ন (৫৬) খানি পৃথক পৃথক্ গ্রামে বাস করিতেছিলেন ; উক্ত গ্রামসমূহের নামানুসারে তাহাদের গ্রামী বা গাই সংজ্ঞা হয়। এইজন্ত উত্তর কালে কথা হইয়া ছিল ;– “পঞ্চ-গোত্র ছাপ্পান্ন গাই, তা ছাড়া বামন নাই । যদি থাকে দু’এক ঘর, তা সে সাতশতী আর পরাশর ” বল্লালসেন উক্ত ছাপ্পান্ন গ্রামী ব্রাহ্মণদিগকে আহবান করিয়া তাহাদিগকে কুললক্ষণ অনুসারে বিচার কবেন। উহাদিগের মধ্যে যাহারা বরেন্দ্রে বাস করিতে ছিলেন, তাহারা মূলতঃ ৫৬ গাই ভুক্ত হইলেও, আপনাদিগকে পৃথক্ বলিয়৷ নির্দেশ করেন এবং তাহদের গাই সংখ্যা ১০০ হয়। এই ভাবে পঞ্চব্রাহ্মণ হইতে রাঢ়ীয় ও বারেন্দ্র এই দুই শ্রেণী হয়। বল্লাল রাঢ়ীদিগের মধ্যে বন্দ্য, মুগুটি, চট্ট, পুতিতুগু, গাঙ্গুলি, কাঞ্জিলাল, কুন্দ ও ঘোষাল এই অষ্টগ্রামী ব্রাহ্মণ দিগকে সৰ্ব্বতোভাবে উক্ত নবলক্ষণাক্রান্ত দেখিতে পাইয়া, তাহাদিগকে মুখ্য কুলীন, অন্ত ১৪ গ্রামী ব্রাহ্মণকে গৌণ কুলীন এবং অবশিষ্ট ২৪ গাই ভুক্ত ব্রাহ্মণকে শ্রোত্রিয় আখ্যা প্রদান করিলেন। তিনি পুনরায় বিচার করিয়া উক্ত মুখ্য ৮ গাইভুক্ত কুলীনদিগের মধ্যে ১৯ জনকে বিশেষভাবে সৎকৃত করেন। বল্লালের নিকট সন্মানিত কুলীনগণ কেহই প্রতিগ্রহ বা দান গ্রহণ করিতে পারিতেন না। রাজা তাহাদিগকে গুণানুসারে যথেষ্ট ভূমিদান করিয়াছিলেন। সকল বর্ণের সামাজিক কাৰ্য্যকলাপ ও চরিত্রের উপর লক্ষ্য রাখিবার জন্ত

  • এখানে আবৃত্তি শব্দের একটি বিশেষ অর্থ আছে। আবৃত্তি দ্বারা কুলীনজিগের आन्तान अन्नान ७ ब्रिबर्ड ३लाग्न। श्श चांश कुनथुन गयछ श्छ। बाक्रुको, ১ অংশ, ১৪৪ পৃ: