পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (একবিংশ খণ্ড) - বিশ্বভারতী.pdf/১৯৬

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


রবীন্দ্র-রচনাবলী عbوالا ৰিপাশ । সে বন্দিনীও ছুটি পেয়েছে। কুমারলেন। মৃত্যু ? বিপাশা। না, নূতন প্ৰাণ । কুমারসেন । অর্থ কী, বুঝিয়ে দাও । বিপাশা। জালন্ধর ছেড়েছেন তিনি । গেছেন ধ্রুবতীর্থে, উপাসিকার দীক্ষা নেবেন । কুমারসেন । তোমার কথাটাকে এখনো মনের মধ্যে ঠিক নিতে পারছি নে । বিপাশা। যুবরাজ, স্থমিত্রাকে তো চেনো। স্বর্ষের তপস্তা সেই জ্যোতির্ময়ী ছাড়া কে গ্রহণ করতে পারে আজকের দিনে। আলোকের দূতী যারা, ভোগের ভাণ্ডারে তাদের বন্ধন রুদ্রদেব সহ করতে পারেন না । কুমারলেন। আর জালন্ধররাজ বুঝি শৃঙ্খল হাতে নিয়ে ছুটেছেন । {} বিপাশা। মাটির বাধ দিয়ে নদীকে বেঁধে তার স্রোতকে রাজভাণ্ডারে জমা করবার জন্তে ; র্তার কথা জিজ্ঞাসা করো আমার ওই পথের সঙ্গীকে । কুমারসেন । তোমার পথের সঙ্গী ? বিপাশা ৷ ই যুবরাজ, আমার পথের সঙ্গী। চুপ করে রইলে ! এর থেকে বুঝছি তুমি বুঝেছ। এর উপরে কথা চলে না। কুমারসেন । এতদিনে বন্ধন গ্রহণ করলে, বিপাশা ? বিপাশা। বিপাশা সিন্ধুনদীতে মিলেছে, সে মুক্তধারার মিলন। কুমারসেন । ওঁর নামটি বলে । বিপাশা। ওঁর নাম নরেশ | রাজা বিক্রমের বৈমাত্র ভাই । ডেকে আনছি। কুমারলেন । নমস্কার, রাজকুমার । নরেশ ! নমস্কার । কুমারলেন । তোমার মতো অতিথিকে পেয়ে আমার আজকের দিন সার্থক । নরেশ । আমি আমার মহারানীর অনুবতী— তীর্থযাত্ৰী আমি, পথের অতিথি । তোমার দ্বারে আজ ষে-অতিথি অনাহূত এসেছেন, তার সংবাদ পেয়েছ ? প্রস্তুত হয়েছ তো ? o কুমারসেন। এই মাত্র সংবাদ পেয়েছি । আয়োজন নেই, কিন্তু আহবান করতে হবে। বিশেষ করে আমারই সঙ্গে তার যুদ্ধের কারণ কী ঘটেছে তা এখনো পর্যন্ত বুঝতেই পারি নি। n নরেশ । কারণের প্রয়োজন হয় না । অন্ধ বিৰেৰ অন্ধ ট্রর্ব বাইরে_থেকে প্রখ