পাতা:শরৎ সাহিত্য সংগ্রহ (দশম সম্ভার).djvu/১৯১

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


अङ्कम्रोथ| t 赶1 আপনি নিজে উপযাচক হয়ে তাকে রাজি করিয়েচেন ? ই। তাই । তাই যদি হয়ে থাকে এ অত্যন্ত লজ্জাকর কথা । শুধু আপনার নয়, আমারও । আপনার লজ্জা কিসের ? সেই কথা জানাতেই আমি এসেচি। ত্রিলোচন বলে গেল, শুধু আমার তাড়াতেই বিভ্রান্ত হয়ে নাকি আপনি এ প্রস্তাব করেচেন। বলেচেন, আপনার দাড়াবার স্থান নেই এবং বন্ধ সাধ্য-সাধনায় তাকে সম্মত করিয়েচেন, নইলে এ-বয়সে বিবাহের ইচ্ছে সে ত্যাগ করেছিল। শুধু আপনার কান্নাকাটিতে দয়া করে ত্রিলোচন রাজি হয়েচে । ই, এ-সৰই সত্যি। বিজয় কহিল, আমার তাড়া দেওয়৷ আমি প্রত্যাহার করচি. এবং নিজের আচরণের জন্য ক্ষমা প্রার্থনা করচি । অনুরাধ চুপ করিয়া রহিল। বিজয় বলিল, এবার নিজের তরফ থেকে আপনি প্রস্তাব প্রত্যাহার করুন । না, সে হয় না। আমি কথা দিয়েচি -সবাই শুনেচে–লোকে তাকে উপহাস করবে । এতে করবে না ? বরঞ্চ ঢের বেশী করবে। তার উপযুক্ত ছেলে-মেয়েদের সঙ্গে বিবাদ বাধবে, তাদের সংসারে একটা বিশৃঙ্খলার স্বষ্টি হবে, আপনার নিজের অশান্তির সীমা থাকবে না, এ-সব কি ভেবে দেখেননি ? অনুরাধা মৃদু-কণ্ঠে বলিল, দেখেচি। আমার বিশ্বাস এ-সব কিছুই হবে না। শুনিয়া বিজয় অবাক্ হইয়া গেল, কহিল, সে বৃদ্ধ ক’টা দিন বঁাচবে আশা করেন ? অনুরাধা বলিল, স্বামীর পরমায়ু সংসারে সকল স্ত্রীই বেশী আশা করে। এমনও হতে পারে হাতের নোয়া নিয়ে আমি আগে চলে যাব। বিজয় এ-কথার উত্তর খুজিয়া পাইল না, স্তব্ধতাবে দাড়াইয়। রহিল । কিছুক্ষণ এমনি নীরবে কাটিলে অমুরাধা বিনীত-স্বরে কহিল, আপনি আমাকে চলে যেতে হুকুম করেচেন সত্যি, কিন্তু কোনদিন তার উল্লেখ পৰ্য্যন্ত করেন নি। দয়ার যোগ্য নই, তবু যথেষ্ট দয়া করেচেন, মনে মনে আমি যে কত কৃতজ্ঞ তা জানাতে পারিনে । বিজয়ের কাছে উত্তর না পাইয়। সে বলিতে লাগিল, ভগবান জানেন আপনার বিরুদ্ধে কারে কাছে আমি একটা কথাও বলিনি। বললে আমার অন্তায় হ’তো, ՖԵ Ֆ