পাতা:শরৎ সাহিত্য সংগ্রহ (দশম সম্ভার).djvu/৩৫৩

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


नष्टTांडवग्नौ আছে, সুতরাং ঘুম ভেঙ্গে চোখ রগড়ে উঠে বসলেই সব পাব, এ যাদুবিদ্যার আশ্বাস দিতে আমার কোনকালেই প্রবৃত্তি হয় না। জগৎ মামুক আর না-মামুক, আমরা মস্ত বড় জাতি, এ কথা বহু আস্ফালনে দিকে দিকে ঘোষণা করে বেড়াতেও যেমন আমি গৌরব বোধ করিনে, তেমনি, বিদেশী রাজশক্তিকে ধিক্কার দিয়ে ডেকে বলতে লজ্জা বোধ করি ষে, হে ইংরাজ, তোমরা কিছুই নয়, কারণ অতীতকালে আমরা যখন এই সমস্ত বড় বড় কাজ করেছি, তোমরা তখন শুধু গাছের ডালে ডালে বেড়াতে । এবং বিদ্রুপ করে কেউ যদি আমাকে বলে—তোমরা যদি সত্যই এত বড়, তবে হাজার বছর ধরে একবার পাঠান, একবার মোগল, একবার ইংরাজের পায়ের তলে তোমাদের মাথা মুড়োয় কেন, তবে এ উপহাসের প্রত্যুত্তরেও আমি ইতিহাসের পুথি ঘেটে অন্তান্ত জাতির দুর্দশার নজির দেখাতেও ঘূণা বোধ করি । বস্তুতঃ এ তর্কে লাভ নেই। বিগত দিনে তোমার আমার কি ছিল, এ নিয়ে গ্লানি বাড়িয়ে কি হবে,—আমি বলি, ইংরাজ, আজ তুমি বড় ; শৌর্য্যে, বীৰ্য্যে, স্বদেশপ্রেমে তোমার জোড়া নেই ; কিন্তু আমারও বড় হবার সমস্ত মালমশলা মজুত । আজ দেশের যৌবন-চিত্ত পথের খোজে চঞ্চল হয়ে উঠেছে, তাকে ঠেকাবার শক্তি কারও নেই, তোমারও না । তুমি যত বড়ই হও, সে তোমারই মত বড় হয়ে তার জন্মের অধিকার আদায় করে নেবেই নেবে। কিন্তু কোন সংজ্ঞায় যৌবনকে নির্দেশ করা যায় ? অতীত যার কাছে অতীতের বেশী নয়, সে যত বৃহৎ হোক, মুগ্ধ চিত্ত-তলে তাকেই লালন করে কালক্ষেপের অবসর যার নেই, যার বৃহত্তম আশা ও বিশ্বাস অনাগতের অন্তরালে কল্পনায় উদ্ভাসিত—সেই ত যৌবন। এখানেই বৃদ্ধের পরাজয় । শক্তি তার নিঃশেষিতপ্রায়, ভবিষ্যত আশাহীন শুষ্ক, সম্মুখ অবরুদ্ধ, শেষ-জীবনের বাকী দিন-ক’টা তাই প্রাণপণে অতীতকে আঁকড়ে থাকাই তার সাত্বনা। এ অবলম্বন সে কোনমতেই ছাড়তে পারে না; কেবলই ভয় হয়, এর থেকে বিচু্যত হলে তার দাড়াবার স্থান আর কোথাও থাকবে না। স্থিতিশীল শাস্তিই তার একান্ত আশ্রয়, বহুদিন আবদ্ধ খাচার পাখীর মত, মুক্তিই তার বন্ধন, মুক্তিই তার মুনিয়ন্ত্ৰিত অভ্যাস-সিদ্ধ প্রাণধারণ-প্ৰণালীর যথার্থ অন্তরায়। এইখানেই যৌবনের সঙ্গে তার প্রচও বিভেদ। দেশের, সমাজের, জাতির মুক্তি-বিধানের দায়িত্ব যতদিন এই বৃদ্ধের হাতেই থাকবে, বন্ধনের গ্রন্থিতে পাকের পর পাক পড়তেই থাকবে, খুলবে না। কিন্তু যৌবন-ধৰ্ম্ম এর বিপরীত। তাই যেদিন থেকে শুনতে পেলাম, স্কুল-কলেজের ছাত্র আর রাজনীতিকে—ষে রাজনীতি কেবলমাত্র পলিটিক্স নয়, ষে রাজনীতি স্বদেশের মুক্তিযজ্ঞে ব্রতের মত, రిge