পাতা:শরৎ সাহিত্য সংগ্রহ (দশম সম্ভার).djvu/৩৫৪

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


শরৎ-সাহিত্য-সংগ্ৰহ वाचfब्र य७, फांटकहे aाझ्यं कब्ररङ दकनब्रिकब्र हरबरझ, ७ कूज९झांरब्रब्र शं७ cषरक অব্যহতি লাভ করেছে যে, এ বস্তু তার ছাত্রজীবনের পরিপন্থী—সেইদিনই আমার প্রতীতি জন্মেছে, এবার সত্য সত্যই আমাদের দুর্গতি মোচন হবে । ছাত্র এবং দেশের যুবক-সম্প্রদায়ের কাছে আমার অস্তরের নিবেদন, এ সঙ্কল্প থেকে যেন তার কারও কথায় কোন প্রলোভনেই বিচুত না হন। * এ সম্বন্ধে বহু মনীষী ব্যক্তিই বহু উপদেশ দিয়েছেন । তোমরা এই কর, এই কয়, এই কর,—এই তোমাদের করণীয়, এই আচরণই প্রশস্ত, স্বাৰ্থত্যাগ চাই, বুকের মধ্যে স্বদেশ-গ্রীতি জালিয়ে তোলা প্রয়োজন, জাতিভেদ অস্বীকার, ছুংমার্গ পরিহার, খদ্দর পরিধান—এমনি অনেক আবস্তকীয় ও মূল্যবান আদেশ এবং উপদেশ। এই হলো প্রোগ্রাম। আবার অন্য প্রকার উপদেশ, ভিন্ন প্রোগ্রামও আছে। আপনাদেঃই মত দেশের বহু ছাত্র ও যুবক আমাকে গিয়ে জিজ্ঞাসা করেন—আমরা কি করব আপনি বলে দিন। উত্তরে আমি বলি,- প্রোগ্রাম ত আমি দিতে পারিনে, আমি গুৰু তোমাদের বলতে পারি, তোমরা দৃঢ়পণে সত্যাশ্রয়ী হও । তারা প্রশ্ন করেন, এ ক্ষেত্রে সত্য কি ? বিভিন্ন মতামত ও প্রোগ্রাম ষে আমাদের উদভ্ৰান্ত করে দেয়। জবাবে আমি বলি, সত্যের কোন শাশ্বত সংজ্ঞা আমার জানা নেই। দেশ, কাল ও পাত্রের সম্বন্ধ বা relation দিয়েই সত্যের যাচাই হয়। দেশ কাল পাত্রের পরস্পরের সম্বন্ধের সত্যজ্ঞানই সত্যের স্বরূপ । একের পরিবর্তনের সঙ্গে অপরের পরিবর্তন অবশ্যম্ভাবী। এই পরিবর্তন বৃদ্ধিপূৰ্ব্বক মেনে নেওয়াই সত্যকে জানা। যেমন বহুপূৰ্ব্বকালে রাজাই ছিলেন ভগবানের প্রতিনিধি। দেশের লোকে একথা মেনে নিয়েছিল । একে অসত্য বলতে আমি চাইনে। সেই প্রাচীন যুগে হয়ত এই ছিল সত্য, কিন্তু আজ জ্ঞান ও পারিপাধিকের পরিবর্তনের ফলে এ কথা যদি ভ্রাস্ত বলেই প্রমাণিত হয়, তবুও কোন এক সাবেক দিনের যুক্তি ও উক্তি-মাত্রকেই অবলম্বন করে একেই সত্য বলে যদি কেউ তর্ক করে, তাকে আর যাই কেন না বলি, “সত্যাশ্রয়ী" বলব না । কিন্তু শুধুমাত্র মানাই এর সবটুকু নয়,—বস্তুতঃ আর একদিক দিয়ে কোন সার্থকতাই এর নেই—যদি না চিন্তায়, বাক্যে ও ব্যবহারে, জীবনযাত্রার পদে পদে এ সত্য বিকশিত হয়ে ওঠে । ভুল জ্ঞান, ভ্রাস্ত ধারণা, বরঞ্চ সেও ভালো, কিন্তু ভিতরের জানা ও বাইরের আচরণে যদি সামঞ্জস্ত না থাকে,—অর্থাৎ যদি জানি একরকম, বলি আর একরকম এবং করি আর একরকম,—তবে জীবনের এত বড় ব্যর্থতা, এত বড় ভীরুতা আর নেই । যৌবন-ধৰ্ম্মকে এতখানি ছোট করতে আর দ্বিতীয় কিছু নেই। ছংমার্গ, জাতিভেন, খদ্দর পরিধান, জাতীয় শিক্ষা, দেশের কাণ–এ সব সত্য কি woss