পাতা:শিখ-ইতিহাস.djvu/১৭৯

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


SO9 শিখ-ইতিহাস পরাজিত হইল। যুদ্ধে জয় সিংহের জ্যেষ্ঠ পুত্র গুরুবক্স সিং নিহত হইলেন, এবং বুদ্ধ জয়সিংহের শক্তি দ্বিবিধ দুঃখে যথেষ্ট হ্রাস হইল। যুশা সিং স্বীয় রাজ্যে পুনঃপ্রতিষ্ঠিত হইলেন। সংসার চাদের পিতা ও পিতামহ যে দুর্গ অধিকার করিতে বিশেষ ইচ্ছা প্রকাশ করিয়াছিলেন, সংসার চাদ সেই 'কাঙড়া’ দুৰ্গ লাভ করিলেন। এক্ষণে মাহ সিং পঞ্জাবে বিশেষ ক্ষমতাপন্ন সর্বশ্রেষ্ঠ রাজা বলিয়া পরিগণিত হইলেন। র্তাহার একমাত্র পুত্র, রণজিৎ সিংহ, ১৭৮০ খৃষ্টাব্দে জন্মগ্রহণ করেন। রণজিৎ সিংহের সহিত আপন শিশু কন্যার বিবাহ সম্বন্ধ দ্বারা উভয় পরিবারের একত-বন্ধন দৃঢ়রপে বদ্ধমূল করিতে প্রয়াসী হইয়া, জয়সিংহের বিধবা পত্নী সাদা কোঁর মাহ সিংহের নিকট এক প্রস্তাব উত্থাপন করিলেন। মাহ সিং তাঁহাতে সম্মত হইলেন। অনস্তর মাহ সিং গুজরাট আক্রমণ মানসে যাত্রা করিলেন। ১৭১১ খৃষ্টাব্দে র্তাহার পিতার মিত্র তত্ৰত্য ‘ভাঙ্গ’ -রাজ গুজার সিংহের মৃত্যু হয়। কিন্তু তিনি নিজেও সেই নগর অবরোধ সময়ে, বিশেষ পীড়িত হইয়া পড়েন, এবং পর বৎসরের প্রথমভাগে কেবলমাত্র সাতাইশ বৎসর বয়সে অকালে কালকবলে পতিত হন ।৯ ১৭৯৩ খৃষ্টাবো সা জামান কাবুলের সিংহাসনে অধিরোহণ করেন। ভারত-সাম্রাজ্য জয়ের এক অকিঞ্চিৎকর অাশায় তাহার মন সর্বদা পরিপ্লত থাকিত। ১৭৯৫ খৃষ্টাব্দের শেষভাগে তিনি হাসেন অবদাল পর্যন্ত গমন করিয়া, তথা হইতে একদল সৈন্ত পূর্বাভিমুখে প্রেরণ করিলেন। কথিত হয়, তাহারা রোটাসের দুর্গ পুনরধিকার করিয়াছিল। কিন্তু তাহার পশ্চিমস্থ রাজ্যের অরক্ষিত অবস্থা হেতু, তিনি কাবুলে প্রত্যাবর্তন করিতে বাধ্য হইলেন । পুনর্বার দুরাণি আক্রমণের এক জনরব উঠে। উত্তর ভারতের তাৎকালিক নরপতিগণ ইংরেজ এবং মারহাট্টাগণের অত্যাচারে ক্লিষ্ট হইয়া পড়িয়াছিলেন। সুতরাং তাহারা যে দুরণি-আক্রমণের ভয়ে ভীত হন নাই,—তাহা সম্ভবপর বলিয়া অনুমিত হয় না। রোহিলখণ্ডের ভূতপূর্ব শাসনকর্ত, গোলাম মহম্মদ, ১৭৯৫-৯৬ খ্ৰীষ্টাব্দে পঞ্জাব অতিক্রম করিলেন। আপন কল্পনা কার্যে পরিণত করার উদ্দেশুে সা জামানকে উত্তেজিত করাই তাহার বাসনা ছিল । তাহার এই দুঃসাহসিক দুরভিসন্ধি ব্যর্থকরণ মানসে অযোধ্যার আসফউদ্দৌলার পক্ষ হইতে র্তাহার প্রতিনিধিগণ গোলাম মহম্মদের অনুগমন করিলেন । কিন্তু মুসলমানগণ সন্তুষ্টচিত্তে র্তাহাকে নিস্তারকারী বলিয়া গ্রহণ ৯। হস্তলিখিত ইতিহাস ও পুরাবৃত্ত দ্রষ্টব্য। ফরষ্টারের ভ্রমণ-বৃত্তান্ত প্রথম খণ্ড ২৮৮ পৃষ্ঠা ; মারে বিরচিত রণজিৎ সিং ৪২ এবং ৪৮ পৃষ্ঠা ; মুরক্রফটের ভ্রমণ-বৃত্তান্ত’, প্রথম খণ্ড, ১২৭ পৃষ্ঠা। (Compare Forster, “Travels', i. 288, Murray's ‘Ranjeet Singh', p. 42. 48. and Moorcrofos Travels", i. 27, ) যুশ সিংহের স্বরাজ্যে পুনঃপ্রতিষ্ঠা এবং ‘কুশিয়াদিগের পরাজয়ের সময় ১৭৮২ খৃষ্টাব্দে নির্ধারিত না হইয়া—১৭৮৪, ১৭৮৬ খৃষ্টাব্দে নিদিষ্ট হওয়াই যুক্তিযুক্ত। মায়েও সেই মত সমর্থন করিয়াছেন। ইহার কারণ, ফরষ্টারের বিবরণ অনুসারে ("Travels', 356 note ) ১৭৮৫ খৃষ্টাব্দে রোহিলখণ্ড অবরুদ্ধ হয়, এবং যে যুগ সিং সেই যুদ্ধে ব্যাপৃত ছিলেন বলিয়া স্থিরীকৃত হইয়াছে, তিনি তৎকালে নির্বাসন দণ্ডে দণ্ডিত হইয়াছিলেন ।