পাতা:শিখ-ইতিহাস.djvu/৪০৬

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


দ্বিতীয় শিখযুদ্ধ శ్రీశ్రీశ్రీ প্রতিষ্ঠিত। তিনি মূলরাজকে পদত্যাগ করিতে নিষেধ করিলেন,—পুনর্বিবেচনা করিয়া দেখিতে কহিলেন। কিন্তু মূলরাজ অহা শুনিলেন না; তিনি যথারীতি লাহোর দরবারে পদত্যাগ-পত্র প্রেরণ করিলেন । রেসিডেন্ট লরেন্স সে পদত্যাগ-পত্র মজুর সম্বন্ধে বাধা দিলেন ; মূলরাজের কয়েকটি সর্তে কোন-ক্রমেই স্বীকার হওয়া যায় না বলিয়, তিনি আপত্তি তুলিলেন। এইরূপে কিছু দিন কাটিয়া গেল অত:পর পুনরায় মূলরাজ রেসিডেন্টের নিকট আর এক আবেদন পত্র প্রেরণ করিলেন ; এবং তিনি যে কি জন্য দেওয়ানী পদ পরিত্যাগ করিতে চাহিতেছেন, পত্রে তাহার দুইটী প্রধান কারণ উল্লেখ করিলেন। সে কারণ দুইটী এই ;–প্রথমতঃ পঞ্জাবে নূতন বাণিজ্য শুদ্ধ স্থাপিত হওয়ায়, তাহার রাজস্ব আদায়ে সমূহ বিঘ্ন ঘটয়াছে। দ্বিতীয়তঃ,সংপ্ৰতি প্রজাবৰ্গ লাহোর-দরবারের নিকট পূনবিচার প্রার্থনার স্বত্ব লাভ করিয়াছে; তাহার ফলে, তাহার ক্ষমতা বিশেষ কমিয়া গিয়াছে; রাজস্ব সংগ্রহে তিনি আর কাহারও প্রতি কোনরূপ পীড়ন করিতে পারিতেছেন না। প্রধানতঃ শেষোক্ত কারণেই মূলরাজ পদত্যাগ করিতে প্রস্তুত । যেহেতু, পূর্বে তাহার আয়ের পথ বিস্তৃত ছিল ; কিন্তু এক্ষণে পুনর্বিচারের ক্ষমতা-হেতু সে পথ সীমাবদ্ধ হইয়া গিয়াছে। সে ক্ষেত্রে মুলতান প্রদেশের কোনও অভিযোগে দরবার যদি আর কৰ্ণপাত না করেন, তাহা হ’লে মূলরাজ পদত্যাগ-পত্র প্রত্যাহার করিতে প্রস্তুত আছেন । যাহা হউক, তাহার এ প্রস্তাব গ্রাহ হইল না। স্বতরাং তিনি পদত্যাগেই দৃঢ়প্রতিজ্ঞ হুইলেন। পরন্তু এই সময়ে রেসিডেন্টের নিকট তিনি দুইটা প্রার্থনা জ্ঞাপন করিলেন – প্রথমতঃ, তাহাকে একটা ‘জায়গীর দেওয়ায় বিষয় স্বীকার করা হউক ; দ্বিতীয়তঃ, তদ্বিষয়ে কোনও শেষ মীমাংসা না হওয়া পর্যন্ত, তাহার পদত্যাগ-পত্রের বিষয় গোপন রাখা হউক। 'জায়গীর দেওয়া সম্বন্ধে রেসিডেণ্ট অবশ্য পাকাপাকি কোনও উত্তর দিতে পারিলেন না ; পরন্তু ঐ প্রার্থনার বিষয় বিশেষরূপ বিবেচনা করা হইবে, এইমাত্র আশ্বাস দিলেন । তবে মূলরাজের পদত্যাগ-পত্রের বিষয় যে গোপন রাখা হইবে, তৎসম্বন্ধে তিনি প্রতিঙ্গ-বন্ধ হইলেন । ঐ পদত্যাগ-পত্রের বিষয় রেসিডেন্টের অধীনস্থ রাজনৈতিক বিভাগের কর্মচারিগণ এবং ব্রিটিশ-গবপ্লমেণ্ট মাত্র জানিতে পারিবেন, লাহোর দরবারকে ঐ বিষয় কদাচ জানান হইবে না,—তখন ইহাই স্থির হইয়া গেল । ১৮৪৮ খৃষ্টাব্দের ৬ই মার্চ সার ফ্রেডারিক কারি লাহোরের রেসিডেন্ট পক্ষ প্রাপ্ত হইলেন। তাহার আগমনের পূর্বে মিঃ লরেন্স পুনরায় মূলরাজকে এক পত্র লিখিলেন ; মূলরাজ এখনও যদি পদত্যাগ করিতে কুষ্ঠিত হন, তিনি অনায়াসে আপন পদত্যাগ-পত্ৰ ফিরাইয়া লইতে পারেন,—লরেন্সের পত্রের ইহাই মর্ম। কিন্তু মূলরাজের মানসিক দৃঢ়তা তখনও অক্ষুন্ন রহিল ; তিনি পদত্যাগপত্র প্রত্যাহার করিতে স্বীকৃত হইলেন না । অতঃপর নূতন রেসিডেন্ট তার ফ্রেডারিক কারি মূলরাজের পদত্যাগ-পত্রের বিয়য় আলোচনা করিতে আরম্ভ করিলেন ; তিনি দরবারের সহিত ঐ সম্বন্ধে পরামর্শ করিতে চাহিলেন । মিঃ লরেন্স কিন্তু তৰিষয়ে ঘোর আপত্তি উত্থাপন করিলেনঃ দরবারের নিকট ঐ পত্র গোপন রাখা হইবে বলিয়া তিনি যে প্রতিজ্ঞাবদ্ধ হইয়াছিলেন, তাহা জ্ঞাপন করিলেন । কিন্তু