পাতা:শ্রীশ্রীহরি লীলামৃত.djvu/২০৭

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


Sసీty শ্ৰীশ্ৰীহরিলীলামৃত । সেই গ্রামে ভোজ দিতে কৈল আয়োজন । ভোজ দিতে লাগিবে ভণ্ডুল দুই মন ॥ আর এক মন লাগে সিধা পত্র দিতে । চারি মন দধি লাগে ভোজ ভোজনেতে ॥ নিয়াছিল তারক তণ্ডুল চারি মন। একমন দধি তার আছে অৰ্দ্ধমন ॥ তিনমন চাউল পাকের জন্ত দিল । , দুইমন পাক হ’ল একমন র’ল ৷ অন্ন দেখি গ্রাম বাসী সব লোকে কয়। এই অন্নে হইবেক হেন মনে লয় ॥ দুগ্ধ ক্রয় ক’রেছে পায়ুস রাধিবারে। পায়স হইল পাক পাকশাল। ঘরে ॥ গ্রামবাসী এসে লোক বসাইয়া দিল । দুই প্রাঙ্গণেতে লোক ভোজনে বসিল । দাইল লাবড়া ভাজ। ব্যঞ্জন অন্ধল । আহারান্তে সবে বলে উত্তম সকল, . হয় নাই কভু কোথা এমন ভোজন । পায়সান্ন দিতে জন্ত করে আয়োজন ॥ হেনকালে একজন গোয়ালা আসিল । দুইমন দধি কাধে ল’য়ে দাড়াইল ॥ সে বলে আমার এই দধি টুকু লও। দয়া করি এই দধি খরচে-লীগাও ॥ এ দধির বায়ন ব্রাহ্মণ বাড়ী ছিল । উদ্ধৰ্ত্ত হয়েছে দধি ফেরৎ করিল ॥ অমনি তারক বলে দেও দেও দেও। সত্বর স্বজাতি গণে এ দধি খাওয়া ও ॥ সঙ্গে দধি বাটী হ’তে আন অৰ্দ্ধ মন । সে গ্রামে খরচ গেল দধি দুই মন ॥ দধি ভোজ শেষ হ’ল পায়স ভোজন। সবে বলে হেন ভাল না খাই কখন ॥ বিবাহের পরে জয়পুর অাশা হ’ল। সঙ্গেতে ফেরৎ দধি অৰ্দ্ধ মন ছিল। চাউল দুমন ফিরে আর জল পান। তার অর্থ দধি বাল্য ভোজনে লাগান ৷ পাক পরশের জন্ত দধি নাহি হ’বে। দুগ্ধ কিনিলেন ভোজে পরমান্ন দিবে। আর আর দ্রব্য সব হ’য়েছে রন্ধন । সব লোকে বসিলেন করিতে ভোজন ॥ খাইলেন ভাজা ব্যঞ্জনাদি মৎস্য ঝোল। ভোজনের শেষে সবে থাইল অম্বল ॥ হেনকালে একজন গোয়াল আসিল । একমন দধি ল’য়ে উপনীত হ’ল ॥ গোপবলে কুণ্ড বাড়ী ছিল দধি বায়না। সব দধি নিল তার একমন নেয়ন ॥ এই দধি খেতে দিব আমার গরজ । যাহা ইচ্ছা মূল্য দিও হউক খরজ । তারক বলিল এই ঠাকুরের কাম । আন দধি দিব আমি দুইটাক দাম । পুৰ্ব্বে একমন আর এই একমন। চারি টাক। মূল্য এনে দিলেন তখন । ছাতরায় বাস ছিল রায়চাদ ঘোষ। .. চারি টাকা মূল্য পেয়ে হইল সন্তোষ ॥ ভাঙ্গুড়ার গোয়ালের দুইমন দই । চারি টাকা পাইয়া সস্তুষ্ট হ’ল সেই ॥ শ্ৰীহরি-চরিত্ৰ-মুধা ভকত আখ্যান। রচিল তারক চন্দ্র হরি রস গান ॥ " সূৰ্য্য নারায়ণের সর্পাঘাত। পয়ার । এবে শুন স্বামী হীরামন গুণ কথা । লেখা আছে ডুমরিয়া পূৰ্ব্বের বারতা। স্বামী হীরামন যবে ডুমুরিয়া গেল। সূৰ্য্য নারায়ণ সে তামাক সেজে দিল ॥ কলিকা ঢালিয়া পড়ে মৃত্তিকী উপরে। হীরামন সে তামাক হাত পেতে ধরে। সূৰ্য্য নারায়ণে দিল সেই যে তামাক । বলে এই তামাক যতন করি রাখ ॥ তামাক যতন করি গৃহেতে রাখিস । সাপে কামড়ালে খেলে সেরে যাবে বিধ । সেই যে তামাক টুকু যতন করিয়া। ঝাপির ভিতর রাখে পুটলী বাধিয়া ॥ সাতাশে তারিখ চৈত্র মাস বুধবার। বেদগ্রামে যাইবেন গান গাইবার ॥ বাট গিয়া বলে মোরে শীঘ্ৰ দেও খেতে । গান গাইবারে হ’বে বেদগ্রামে যেতে ॥ ইহা বলি ব্যস্ত হ’য়ে হইল উতল । জাগ দেওয়া তিল ছিল ভেঙ্গে দিল পাল ॥ পাল ভাঙ্গি উঠানেতে দিল ছড়াইয়া। তার মধ্যে সর্প ছিল দংশিল আসিয়া ॥