পাতা:ষোল আনি (জলধর সেন).djvu/১১৮

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


ষোল-তলানি সে মনোহর চাটুয্যের ষোল-আনার মালিক হয়েছে। জাত যদি মারতে চাও, তা হলে আগে মার দেখি এই মনোহর চাটুয্যের, তার পর অন্ত কথা। শীতল ঠাকুর পাজী! তোমরা সিধুবাবুর জাত মারতে কেমন পার, তা আমি দেখে নেব । এই সদী গয়লানীর কথাটা আমি যদি এই সমাজের গায়ে গায়ে প্রচার করে মনোহর চাটুয্যের মুখে চুন-কালী দিতে না পারি, তা হলে আমি শীতল ঠাকুরই নই। আমি পাজী, আমি গেজেল ; আর উনি ভদ্র লোক ” এই বলিয়৷ শীতল ঠাকুর সে স্থান ত্যাগ করিল। কাহারও সাধ্য হইল না যে একটি কথা বলে।