পাতা:সাহিত্য-সাধক-চরিতমালা প্রথম খণ্ড.pdf/৭০৪

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


উইলিয়ম কেরী ও বাংলা-সাহিত্য বাংলা-গদ্যের ইতিহাস প্রসঙ্গে উইলিয়ুম কেরীর কৰ্ম্মময় দীর্ঘ জীবনের কাহিনী যথাসম্ভব সংক্ষেপে বিবৃত করিয়া আমরা সৰ্ব্বশেষে বাংলা ভাষা ও সাহিত্যে র্তাহার স্থান নির্ণয়ের চেষ্টা করিব । বস্তুতঃ আমাদের ইতিহাসের পক্ষে এই অংশটুকুই প্রয়োজনীয়—আসল মানুষটিকে বাদ দিয়া তাহাল কীপ্তিকথামাত্র প্রচার করিতে বসিলে ইতিহাস অসম্পূর্ণ থাকিয়া যায় ; কিন্তু একটি মানুষের জীবনকে সমগ্রভাবে দেখিলে কোনও খণ্ড বিষয়েও তাহার কৃতিত্বের পরিমাপ করা সহস্থ হয় ; গোট মাতুষটি সম্বন্ধে পাঠকের মনে ঔৎসুক্য জাগ্ৰত করিতে BBBB BBBSES SBBBB BBBB BBBB KBB BBB BBBS KB BBBS BBB BDDKK BBBB BBDBDY BBBBB DDS কেরীর জীবন-কথা যিনি ঔংসুক্য ও কৌতুহলের সহিত অনুধাবন BBBBBS BBKKDDBB BBBBB DDDD SBtt BB BBBB iবচ্ছিন্ন করিতে পাপ্লিবেন না । সাহি ্যের কাহিনী লিপিবদ্ধ করিতে বসিয়া সাহিত্যিকে জীবনী আলোচনা এই কারণেই এত মূল্যবান। বিশেষ করিয়া কেরী, মৃত্যুর, রামমোহন, ভবানীচরণ, ঈশ্বর গুপ্ত, ঈশ্বরচন্দ্র, অক্ষয়কুমার, কৃষ্ণমোহন, রাজেঞ্জলাল, প্যারীচরণ, কালীপ্রসন্ন, কৃষ্ণকমল প্রভৃতি বিরাট অথচ অধুনা-বিস্তৃত সাহিত্য-সেবকদের কীৰ্ত্তি অত্যন্ত নিষ্ঠার সহিত অক্ষুধান না করিলে বঙ্কিমচন্দ্র-রবীন্দ্রনাথের কীৰ্ত্তির সম্যক পরিচয় লাভ করা কণনই সম্ভব নয় । কেহ কেহ কে পীর সহিত বাংলা সাহিত্যের ক্রমবিকাশের সম্পর্ককে কাকতালীয় ঘটনার পর্যায়ে ফেলিয়া তাহার কৃতিত্ব লাঘূৰ করিতে চাহিয়াছেন, অর্থাং খ্ৰীষ্টধৰ্ম্মপ্রচাররূপ মূল লক্ষ্যে পৌঁছিতে অনিবাধ্যম্ভাবে