পাতা:বরেন্দ্র রন্ধন.djvu/১২২

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


ఏOR 觸 বরেন্দ্র রন্ধন । बाळ निहवा शकशक शबशबश७ একটু গাওয়া ঘি মিশাও । वख्नत्र সহিত করিলা (একটু লম্বা ছাদে কুটিয়া ) মিশাইয়া এই গুক্ত রাধিতে পার । ১২১ ৷ করিলা-বেগুন ফাল্গুন চৈত্র মাসে বেগুন বুড়া হইলে করিল, নিমপাত, গিমা শাক প্রভৃতি কোনও একটা তিক্তস্বাদ বিশিষ্ট সবঙ্গীর সহিত রাধিয়া খাইতে হয়। বেগুন ও করিলা ডুম ডুমা করিয়া অথবা একটু লম্ব ছাদে কুট। মুণ হলুদ মাখ। তৈলে তেজপাতা, লঙ্কা মেথি, ও সরিষা ফোড়ন দিয়া করিলা ছা ,আংসাও। বেগুন ছাড়, আংসাও । জল দাও। ফুটিলে কষান মাষকলাইর বড়ী ভাঙ্গিয়া ছাড়। একটু পিঠাণী দিয়া ঘন করিয়া নামাও। একটু গাওয়া ঘি মিশাও । কেহ কেহ পিঠালীর পরিবর্তে একটু আদা বাট মিশাইয়া থাকেন। ১২২ ৷ গিমা-বেগুন গিমা শাক বাছিয়া লও। বেগুন ডুম ডুমা বা ঈষৎ লম্বা ছাদে কুটিয়া লও । মটরের বড়ী ভাজিয়া রাখ। তৈলে তেজপাতা, লঙ্কা, মেথি ও সরিষা ফোড়ন দিয়া শাক ছাড়। আংসাও । বেগুন ছাড়, আংসাও । মুণ হলুদ দিয়া জল দাও । ফুটিলে ভাজা বড়ী ভাঙ্গিয়া মিশাও। সিদ্ধ হইলে সামান্ত একটু পিঠালী দিয়া ঘন করিয়া নামাও । একটু গাওয়া ঘি মিশাও । পিঠালীর পরিবর্তে আদা ছেচা মিশাইতে পার। নিম বেগুন, মেথি( শাক ) বেগুন প্রভৃতিও এই প্রকারে রধিবে । g ১২৩ ৷ করিলার রাউত করলা বাকরিলা ঈষৎ লম্বা ছাদে কুটিয়া লও। তৈলে তেজপাতা, লঙ্ক, মেথি, রন্ধনী ও সরিষার গুড় (সরিষার গুড়ার পরিবর্তে ফুলকাসুন্দী হইলেই