পাতা:বরেন্দ্র রন্ধন.djvu/২৫৮

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


है९9/** ब८ब्रवॆद्र ब्रकन । থাকিবে। ক্রমে পুরাতন হইয়া যখন কামুন্দিতে ‘ছাতা পড়িবার উপক্রম হইবে, তখন সরিষার তৈল মিশাইয়া পচন হইতে রক্ষা করিবে । বার-সজের গুড়া— বরেঙ্গ ধনিয়াকে সাধারণতঃ গজ বলিয়া থাকে। এই হেতু ধনিয়াদি অপরাপর সমধৰ্ম্মাপন্ন মশলাকেও কাস্কন্দি উঠানের পরিভাষাতে সঙ্গ” বলা হয়। এই সজের সংখ্যা যে ঠিক বার তাহ লৰুে। ব্যক্তিগত রূচি এবং স্থলগত স্থলভতা অনুসারে সজের সংখ্যা কমি বেশী হইয় থাকে। আমাদের বাটতে যে যে মশল্পায় বার-সজ পুরণ কর হয় তাহা এই ৪ –(১) ধনিয়া /1• এক পোল্লা, (২) জিরা Vie এক পোয়, (৩)গোলমরিচ h• এক পোয়, (৪) পিপুল ১ তোলা, (৫) শুক্কালঙ্কা /১ এক সের, (৬) তেজপাত /V• আধ পোয়, (৭) রাধনী V• এক ছটাক, (৮) শলুপ শাকের বীজ /J• আধ পোয়, (৯) মোরী/1• এক পোয়, (১০) কালজির ১ তোলা, (১১) মেথি ১ তোলা, (১২) জবাইন V• এক ছটাক, (১৩) বড় এলাচী /e এক ছটাক, (১৪) গুজরতী বা ছোট এলাচী /e এক ছটাক, (১৫) লবঙ্গ আধ ছটাক (১৬) দারুচিনি V• এক ছটাফ, (১৭) জৈত্রী আধ তোলা এবং (১৮) জায়ফল ২টি হিসাবে।• দশ সের সরিষার গুড়ায় লওয়া হয় । এই সমস্ত মশল্পী লিখিত হিসাবে লইয়া ঝাড়িয়া বাছিয়া কাট-খোলায় ভাজ । টেকিতে মিহি করিয়া কুট । চালনীতে ( আটা চালায় ) চালিয়া কাকী টুকু লও। চালুনীতে একবার চালিয়া লইলে ফাকী সম্পূর্ণ বাহির হয় না বলিয়া চালুনীতে অবশিষ্ট মিলিখা টুকু লইয়া পুনঃ টেকিতে কুটিয়া পুনঃ চালিয়া লইতে হয়। তথাপি শেষ পর্য্যস্ত কিছু মিলিখা অবশিষ্ট থাকিয়া যায়। সজের গুড়ার এই অবশিষ্ট মলিখার সহিত সরিষার গুড়ার অবশিষ্ট মলিখা মিশাইয়া ‘ফুল-কামুদি প্রস্তুত করা হয়। গজের গুড়ার সহিত ঝালের গুড়ার পার্থক্য-বালের গুড়ার গোলমরিচ অথবা একত্রে জিয়া-মরিচকে মুখ্যতঃ ‘কাল’ কছে এবং ধনিয়া