পাতা:যশোহর-খুল্‌নার ইতিহাস প্রথম খণ্ড.djvu/১৬৫

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে চলুন অনুসন্ধানে চলুন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।

XY8 কাচা ( বাদ )—নিবিড় জঙ্গলপূর্ণ। কাঠির আবাদ—প্রথমতঃ জঙ্গল কাটিয়া যে আবাদ করে, তাহার নাম কাঠির আবাদ। কাঠিকাটা (অধিবাসী ) – যাহারা সৰ্ব্ব প্রথমে বাদা কাটিয়া বসতি স্থাপন করে। ঐহ্মপ জমিতে তাঁহাদের বিশেষ স্বত্ব স্বামিত্ব থাকে, এই অর্থে কাঠিকাটা শব্দ ব্যবহৃত হয়। যেমন ইহা অমুকের কাঠিকাট মহল। কাঠুরিয়া—যাহারা কাষ্ঠ কাটতে বনে যায় । কাবলীওয়ালা—বাঘ । সম্ভবতঃ প্রকাণ্ড মূৰ্ত্তির জন্ত কাবুলিয়াদিগের নামানুসারে নাম হইয়াছে। কাবান-জঙ্গলে কাঠ কাটিয়া রাখিবার ও আনিবার জন্ত পরিষ্কৃত প্রশস্ত স্থান। কুমোর—নদী বা খালের মধ্যে র্কাচ ডাল পাতা দিয়া যে স্থানে মাছ আটকাইয়া রাখে। কোলা—নদী বা খালের কুলে প্রশস্ত স্থান। খাস জঙ্গল—গবর্ণমেণ্টের তত্ত্বাবitsa foot | Reserved forest. খাদাড়ী বা খালাড়ী-লবণের কারখানা । খোজ—চিহ্ন বা পদ চিহ্ন। সদ্ধান । যশোহর-খুলনার ইতিহাস । খোজ তোলা—কাদার মধ্যে চলিবারসময় চিহ্ন রাখিয়া পা তুলিয়া যাওয়া। যেমন "হরিণের খোজ তোলার শবা”। গণ—অনুকূল নদীপ্রবাহ। Favour able current. গরম—হিংস্ৰজন্তুর ভয়যুক্ত। যেমন “অমুক স্থান গরম”—অর্থাৎ যেখানে বাঘ আছে। গলুই-নৌকার অগ্রভাগ। গাছাল–গাছে বসিয়া শিকার। “গাছাল দেওয়া”—অর্থাৎ শিকারের জন্ত গাছে বসিয়া থাকা । গাজি—ব্যান্ত্রের দেবতা। যাহার ব্যাঘ্র শিকার করে বা মারিয়া বীরত্ব দেখায়, তাহাদের গাজি উপাধি হয় । গাজি শব্দের প্রকৃত অর্থ ধৰ্ম্মযোদ্ধা । * গুরো—নীেকার দুই পার্থের “ডালির” সহিত সংযোগ রাখিয়া ২১ হাত অন্তর যে শক্ত কাঠগুলি এড়োভাবে লাগান থাকে, তলদেশে পা না দিয়াও যে কাঠগুলির উপর পা দিয়া নৌকার সন্মুখ হইতে পশ্চাৎ পৰ্যন্ত যাওয়া যায়, তাহার নাম “গুরো” । গোছ—নৌকার ভিতর তলদেশে • Ghazi Signifies a conquero, one who makes warupon infidel: Tabakat-i-Nasiri (Raverty} p. 70 Note 2. "